ঘরোয়া উপায়ে চোখের নিচের কালো দাগ/ ডার্ক সার্কেল দূর করুন

ঘরোয়া উপায়ে চোখের নিচের কালো দাগ/ ডার্ক সার্কেল দূর করুন

রিয়া সরকারঃ উজ্জ্বল ফর্সা ত্বক পাওয়াটা প্রত্যেকের চাহিদা হলেও তা পাওয়াটা সহজ নয়। তার ওপর যদি চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে যায় তাহলে সেটা দুঃস্বপ্ন হয়ে দাঁড়ায়। 

চোখের নিচের কালো দাগ ছেলে মেয়ে প্রত্যেকেরই হতে পারে। এর কারনে আপনার মুখের সৌন্দর্য নষ্ট হয় এবং আপনার ত্বককে নিস্তেজ ও ক্লান্ত দেখায়। দুর্ভাগ্যক্রমে হলেও এটা সত্যি যে চোখের নিচের কালো দাগ দূর করা খুব কষ্টসাধ্য ও সময় সাপেক্ষ। এর কারনে আপনাকে অনেক সময়ই আপনার বয়সের তুলনায় বয়স্ক দেখায়।

যেসব কারনে চোখের নিচে কালো দাগ হয়ে থাকেঃ

যেকোনো বয়সেই চোখের নিচে কালো দাগ বা ডার্ক সার্কেল পরতে পারে। এটি মুলত নিজেদের অসতর্কতার কারনে হয়ে থাকে। চোখের নিচে কালো দাগ হওয়ার কারন গুলো জানা খুবই প্রয়োজনীয়। এসব কারন জানা থাকলে আপনি প্রথম থেকেই তা প্রতিরোধের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

প্রথম ও প্রধান কারন হল ঘুম কম হওয়া অথবা অতিরিক্ত ঘুম, যার ফলে  আপনার চোখের নিচের অংশ অনেকাংশে ফ্যাঁকাসে ও নিস্তেজ দেখায়।

এছাড়াও বলা হয়ে থাকে বয়স বাড়ার সাথে সাথে  চোখের নিচে কালো দাগ পড়ে যায়। আরেকটি কারন হল, চোখে অতিরিক্ত চাপ পরা। যেকোনো কারনেই যেমন- অনেক সময় ধরে মোবাইল ব্যাবহার করা, বা কম্পিউটারের দিকে অনেক্ষন তাকিয়ে থাকলে আপনার চোখে অতিরিক্ত চাপ পরে এবং ধীরে ধীরে চোখের নিচে কালো দাগ পরতে শুরু করে। এছাড়াও, ডিহাইড্রেশন, সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি বা জন্মগত কারনেও হয়ে থাকে।

ঘরোয়া উপায়ে যেভাবে কালো দাগ দূর করবেনঃ

সময় সাপেক্ষ হলেও ঘরোয়া কিছু সাধারণ উপায়ে আপনি এই সমস্যার হাত থেকে রক্ষা পেতে পারেন।

ঠাণ্ডা সেক

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে ঠাণ্ডা সেক খুবই উপকারি। ১ টুকরো বরফ নিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট পর্যন্ত, দিনে ২ বার। এভাবে ব্যবহার করতে থাকলে আস্তে আস্তে কালো দাগ চলে যাবে এবং চোখে ফোলা ভাবও দূর করবে।

শশা

শশায় রয়েছে ভিটামিন সি যা ত্বকের উজ্জলতা বাড়াতে সাহায্য করে। এছাড়াও শশা চোখের নিচের কালো দাগ দূর করে থাকে। ১টি শশাকে গোল গোল করে টুকরো করে ঠাণ্ডা অবস্থায় চোখের ওপর ধরে রাখুব ১০ মিনিট। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এছাড়াও শসার রসের সাথে লেবুর রস মিশিয়ে চোখের নিচে লাগিয়ে নিতে পারেন। এভাবে দিনে ২বার লাগিয়ে নিলে খুব তারাতারি চোখের নিচের কালো দাগ দূর হবে।

টমেটো

টমেটো তে রয়েছে ভিটামিন সি এবং লাইকোপেন। লাইকোপেন ত্বকের কালচেভাব দূর করার সাথে সাথে ত্বকের কোষ গুলোকে ভালো রাখতে সাহায্য করে।

যেভাবে ব্যবহার করবেন

লেবুর রসের সাথে টমেটোর রস মিশিয়ে আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে নিতে হবে। ১০মিনিট পর কুসুম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। এভাবে দিনে ২বার করে ব্যবহার করলে ত্বকের কালচে ভাব আস্তে আস্তে কমে যাবে।

আলু

আলু খেতে যেমন সবাই খুব ভালোবাসে তেমনি আলু ত্বকের জন্য খুবই উপকারি। আলু ত্বকের নানান সমস্যা সমাধান করে থাকে। আলুর মধ্যেও ভিটামিন সি রয়েছে যা আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে এবং ত্বকে রোদে পোরার দাগ, ব্রণের দাগ বা যেকোনো রকমের দাগ দূর করতে সাহায্য করে।
যেভাবে ব্যবহার করবেনঃ ১টি আলুকে গ্রেট করে রস বের করে নিতে হবে। তারপর আলুর রস আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে রাখতে হবে। ১০মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। এটি রোজ লাগান যেতে পারে, যতদিন পর্যন্ত না আপনার কালো দাগ দূর হয়।

নারকেল তেল এবং ভিটামিন ই

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে নারকেল তেল এবং ভিটামিন ই তেল খুবই উপকারি। এই তেল আপনার বলিরেখা দূর করতেও সাহায্য করে। কালো দাগ দূর করতে আপনাকে দুটো তেল একসাথে মিশিয়ে লাগাতে হবে। রাতে ঘুমানোর আগে আপনার চোখের নিচে লাগিয়ে সারারাত রেখে দিন। পরদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। রোজ ব্যবহার করলে এর ফল খুব দ্রুত পাওয়া যাবে।

এগুলো হল খুব সাধারণ ঘরোয়া কিছু উপায় যা ব্যবহার করে আপনি আপনার চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতে পারবেন। এছাড়াও পর্যাপ্ত ঘুম ও ব্যায়াম খুবই জরুরি। আর অবশ্যই রোদে বেরোনোর আগে সানগ্লাস পরতে হবে।
তথ্যসূত্র: এনডিটিভি।

প্রেস/আরএস/এনজে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *