উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার ঘরোয়া উপায়

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখার ঘরোয়া উপায়

রিয়া সরকারঃ আমাদের দেশে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা ঘরে ঘরেই দেখা যায়। এমনকি আজকাল বয়সের তোয়াক্কা না করেই সব বয়সের মানুষকেই যেন আকড়ে ধরছে এই সমস্যা।

এই সমস্যার সমাধান পাওয়া খুব একটা সহজ না হলেও এর থেকে দূরে থাকার কিছু উপায় রয়েছে যা আমাদের সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে।

প্রতিদিনের রুটিনে কিছু পরিবর্তনই আমাদের সুস্থতার কারণ হতে পারে। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কিভাবে আমরা উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারি।

প্রতিদিন ব্যায়াম করলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকবে

এটা বলা যেতে পারে যে, ব্যায়াম সব রোগের সমাধান। ব্যায়াম বা প্রতিদিন হাঁটার মাধ্যমে আপনি উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন। ব্যায়াম করলে হার্ট এর রক্ত সঞ্চালন ভালো হয় যার ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট হাঁটার অভ্যাস গড়ে তুলুন ও সুস্থ থাকুন।

আরও পড়ুন- শরীরচর্চার উপকারিতা

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে

উচ্চ রক্তচাপের মুল কারণ হল শরীরের অতিরিক্ত ওজন। আপনার শরীরের ওজন যত বাড়বে ততোই আপনি নানা শারীরিক সমস্যার আক্রান্ত হবেন। তাই অবশ্যই ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। যতটা সম্ভব চর্বি যুক্ত খাবার থেকে দূরে থাকুন। ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকলে শুধু উচ্চ রক্তচাপ না আপনার শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা কমে যাবে।

চিন্তা মুক্ত থাকতে হবে

এখনকার ব্যস্ত জীবনে প্রতিদিনের কাজের চাপের মাঝে নিজেকে চিন্তা মুক্ত রাখাটা সত্যিই কঠিন। প্রতিদিনই যেন কোন নতুন প্রতিযোগিতার সম্মুখীন হই আমরা। এর মাঝেও খুঁজে নিতে হবে নিজেকে ভালো রাখার উপায়।

অতিরিক্ত চিন্তা বা দুশ্চিন্তা আপনার উচ্চ রক্তচাপের কারণ হতে পারে। দুশ্চিন্তার হাত থেকে নিজেকে মুক্ত করতে যোগ ব্যায়াম, নিশ্বাসের ব্যায়াম বা ধ্যান করা যেতে পারে। এতে আপনার মন হালকা হবে, ঘুম ভালো হবে, যা আপনার রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখবে।

ওজন কমাতে ও চিন্তামুক্ত থাকতে সহায়তা করে টক দই

ধূমপান বর্জন করে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন

“ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক”- আজকাল এটা যেন শুধু সিনেমার শুরুতে অথবা সিগারেটের প্যাকেটের গায়ের লেখা। ধূমপান আপনাকে ধীরে ধীরে মৃত্যুর পথে নিয়ে যায়। সবটা জেনেও যেন আমরা মানতে রাজিনা।

তবে সুস্থ থাকতে হলে ধূমপান বর্জন করতে হবে। সিগারেটের একেকটা টান আপনার শরীরের রক্তচাপ বাড়ায়। এতে থাকা ক্যামিক্যল আপনার রক্তনালীকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। তাই উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে অবশ্যই ধূমপান বর্জন করতে হবে।

খাবারে সোডিয়ামের পরিমাণ কম রাখতে হবে

লবণ আমাদের খাবারের স্বাদ বাড়াতে সাহায্য করে। লবণ ছাড়া খাবার মানে স্বাদহীন খাবার। তবে অতিরিক্ত পরিমাণে লবণ খাওয়া উচ্চ রক্তচাপের কারণ হতে পারে। ডাক্তাররা বলে থাকেন, ব্লাড প্রেসার কমে গেলে স্যালাইন খাওয়াতে কারণ স্যালাইনে রয়েছে পরিমাণ মতো লবণ ও চিনি, যা আপনার ব্লাড প্রেসার বাড়াতে সাহায্য করে। তাই যাদের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা রয়েছে তাদের অবশ্যই খাবারে লবণ পরিমাণ কম থাকতে হবে।

অ্যালকোহল খাওয়া কমাতে হবে

মদ বা অ্যালকোহল রক্তচাপ বাড়িয়ে দিতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, ১৬% উচ্চ রক্তচাপের কারণ হল মদ বা অ্যালকোহল পান করা। অ্যালকোহল শুধু রক্তচাপের কারণ নয়, এটি ডিপ্রেশনের মতো ভয়াবহ রোগেরও কারণ হতে পারে।

চা-কফি খাওয়া কমিয়ে উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন

সকালে ঘুম থেকে উঠে চা বা কফি খায়না এরকম খুব কম মানুষই হয়ত আছে। প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় চা বা কফি আমাদের সবারই থাকে। তবে আমরা হয়ত অনেকেই জানিনা এই চা বা কফি আমাদের উচ্চ রক্তচাপের কারণ হতে পারে।

ক্যাফেইন আমাদের শরীরকে খুব ঝটপট চাঙ্গা করে দেয়। তাই কখন যদি আমাদের ব্লাড প্রেসার কমে যায় বা কোন কারণে দুর্বল বোধ করি, তখন কফি খেলে শরীরের দুর্বল ভাব খুব তাড়াতাড়ি কেটে যায় এবং শরীরকে চাঙ্গা করে দেয়।

এছাড়াও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় ম্যাগনেসিয়াম যুক্ত খাবার রাখতে হবে। যেমন- সবুজ শাক-সবজি, মিষ্টি আলু, টমেটো, কলা ইত্যাদি। তবে যাদের কিডনিতে সমস্যা আছে তাদের ম্যাগনেসিয়াম বেশি খাওয়া ক্ষতিকর হতে পারে। তাই অবশ্যই যেকোনো নতুন ডায়েট শুরু করার আগে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

তথ্যসূত্র: মেডিক্যাল নিউজ টুডে

অনলাইনপ্র্রেস/আরএস/এনজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *